বুধবার এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত

 বুধবার এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত
সংগৃহীত ছবি

করোনাভাইরাস মহামারীর এই পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে কি না এবং এইচএসসি পরীক্ষা কবে শুরু করা যাবে, এসব বিষয় নিয়ে সরকারের সার্বিক সিদ্ধান্ত জানাতে আগামী বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে।

ওইদিন এই সার্বিক বিষয় নিয়ে দুপুর ১২টায় সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি তথ্য তুলে ধরবেন বলে জানিয়েছেন মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের।

তিনি গণমাধ্যমকে জানান, করোনার কারণে এইচএসসি পরীক্ষাসহ শিক্ষা বিষয়ে নানা প্রশ্ন রয়ে গেছে। বিশেষ করে, এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে উদ্বিগ্ন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। এছাড়া বিভিন্ন শ্রেণিতে বার্ষিক পরীক্ষা হবে কি না, সে বিষয় নিয়েও নানা শঙ্কা আছে। এসব নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা দূর করতেই এ সংবাদ সম্মেলন হবে।
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে টানা ছুটি এবং এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত থাকা নিয়ে গতকাল সোমবার জানতে চাইলে মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, করোনার এ পরিস্থিতিতে সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোকে ক্ষমতা দেয়া হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা বা এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে মন্ত্রণালয় মন্ত্রিসভা বা প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ চাইলে তা জানানো হবে।

সচিবে আরোও বলেন, আমরা বলে দিয়েছি, যে কোনো সেক্টর সম্মানিত মিনিস্ট্রিকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। যারা কর্তৃপক্ষ তারা তাদের নিজ বিবেচনায় ব্যবস্থা নেবেন।

এদিকে করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে এইচএসসি পরীক্ষা সম্পন্ন করতে চায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ পরীক্ষা সম্পন্ন করতে শিক্ষাবোর্ড থেকে তিনটি প্রস্তাব তৈরি করে ইতিমধ্যে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

পরীক্ষা নেয়ার বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাবগুলো হলো- কেন্দ্র সংখ্যা বৃদ্ধি, সিলেবাস ও নম্বর কমানো এবং পরীক্ষার বিষয় কমিয়ে আনা। এসব প্রস্তাব নিয়ে বর্তমানে পর্যবেক্ষণ চলছে।

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন।